এই নিবন্ধের জন্য GPX ফাইল ডাউনলোড করুন
এশিয়া > দক্ষিণ এশিয়া > বাংলাদেশ > রংপুর বিভাগ > নীলফামারী জেলা

নীলফামারী জেলা

উইকিভ্রমণ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

নিলফামারী জেলা বাংলাদেশের একটি জেলা। এটি রংপুর বিভাগ এর অন্তর্গত।

জানুন[সম্পাদনা]

মোট ৬ টি উপজেলা নিয়ে নীলফামারী জেলা গঠিত। রাজধানী ঢাকা থেকে উত্তর পশ্চিম দিকে প্রায় ৪০০ কিঃমিঃ দুরে ১৬৪৩.৪০-বর্গ কিলোমিটার আয়তন বিশিষ্ট এই জেলা।

কিভাবে যাবেন?[সম্পাদনা]

স্থল পথে[সম্পাদনা]

ঢাকার গাবতলী বা সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে নীলফামারী জেলা যাওয়ার জন্য এসি ননএসি বাস পাওয়া যায়। এসি বাসের মধ্যে কর্নফুলী এন্টারপ্রাইজ, নাবিল এন্টারপ্রাইজ, হানিফ এন্টারপ্রাইজ, এসআর ট্রাভেলস অন্যতম। কর্ণফুলী ও নাবিল আব্দুল্লাহপুর থেকে ছেরে গাবতলী হয়ে এবং হানিফ সায়েদাবাদ থেকে ও এসআর কল্যানপুর থেকে ছেরে যায়। বাস সার্ভিসগুলোর মটর যান ও সেবার মান অনুযায়ী ভাড়া বিভিন্ন রকম: নরমাল হলে ৩০০-৪৫০ টাকা, চেয়ার কোচ হলে ৪৫০-৫৫০ টাকা, এবং এসি কোচ হলে ৫০০-১০০০ টাকা পর্যন্ত। এছাড়া বিআরটিসি বাসে করে ঢাকা, রাজশাহী, বগুড়া বা রংপুর হতে আসা যায়।

আকাশ পথে[সম্পাদনা]

নীলফামারী জেলার অন্তর্গত সৈয়দপুর পৌরসভায় সৈয়দপুর বিমানবন্দর রয়েছে। শুধুমাত্র অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচলের জন্য ব্যবহৃত এই বিমানবন্দরের সাথে দেশের অন্যান্য বিমানবন্দরের দৈনিক একাধিক সরাসরি ফ্লাইট বিদ্যমান।

জল পথে[সম্পাদনা]

এ জেলায় কোন জলপথ নেই। নদ-নদী প্রায় ভরাট।

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

নীলসাগর, ধর্মপালের গড়, চীনা মসজিদ, তিস্তা ব্যারেজ ও সেচ প্রকল্প, কুন্দুপুকুর মাজার, হযরত শাহ কলন্দর মাজার, হরিশচন্দ্রের পাঠ, ময়নামতির দূর্গ, ভীমের মায়ের চুলা, চীনা মসজিদ, সৈয়দপুর চার্চ, সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানা, দারোয়ানী টেক্সটাইল মিল, উত্তরা ইপিজেড, সৈয়দপুর বিমানবন্দর, ডিমলা রাজবাড়ী, বালাপাড়া গণকবর ইত্যাদি।

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচিহ্ন

বধ্যভূমি ১ (গোলাহাট), গণকবর ৮, স্মৃতিস্তম্ভ ২ (সদর উপজেলার স্বাধীনতার স্মৃতি অম্লান ও বাশার গেট), ভাস্কর্য ১। এছাড়া তেভাগা আন্দোলনে নিহত তৎনারায়ণের স্মরণে ডিমলা বাজারে ‘তৎনারায়ণ স্মৃতিস্তম্ভ’ স্থাপিত হয়েছে।

খাওয়া দাওয়া[সম্পাদনা]

রাত্রী যাপন[সম্পাদনা]