নরসিংদী জাদুঘর

উইকিভ্রমণ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

নরসিংদী জাদুঘর বাংলাদেশের নরসিংদী জেলা সদরে অবস্থিত ব্যক্তি মালিকানাধীন জাদুঘর। নরসিংদী উপজেলা পরিষদ থেকে মাত্র ২০০ মিটার পূর্বদিকে ও পুরনো শিল্পকলা একাডেমি ভবনের পার্শ্বে অবস্থিত এ জাদুঘরটির অবস্থান।

জানুন[সম্পাদনা]

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সমাজসেবক - ড. মো. মোয়াজ্জেম হোসেনের ব্যক্তিগত উদ্যোগে ২০১৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর তারিখে যাত্রা শুরু হয়। তবে, মূল কার্যক্রম শুরু হয়েছে ১ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখ থেকে। মূলতঃ নরসিংদী জেলার ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে বিকশিত করতেই ছোট্ট পরিসরে এ জাদুঘরটি প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে। অত্যন্ত মনোরম ও ঘরোয়া পরিবেশ এখানে বিদ্যমান। ভাড়া করা বাড়ীতে এর প্রাত্যহিক কার্যক্রম চলছে।

দেখুন[সম্পাদনা]

নরসিংদীর বিভিন্ন থানার ভাষাসৈনিক, বুদ্ধিজীবী, শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্থিরচিত্র থেকে শুরু করে হস্তশিল্প, কারুশিল্প, নরসিংদীর মুক্তিযুদ্ধের চাক্ষুস নকশা, বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানের চিত্র, মৃৎশিল্প, কৃষিযন্ত্রাংশ, লোহা-কাঁসার যন্ত্রাংশ, প্রাচীনকালের ধাতবমুদ্রা ইত্যাদি রয়েছে।

দর্শনার্থীর দৃষ্টিভঙ্গীর বহিঃপ্রকাশ ও মূল্যায়ণের জন্যে রয়েছে পরিদর্শন মন্তব্য বহি যাতে অভাব-অভিযোগ লিপিবদ্ধ করা যায়। এছাড়াও জাদুঘরের এক প্রান্তে পড়াশোনার ব্যবস্থা রয়েছে।

প্রবেশ মূল্য[সম্পাদনা]

সাপ্তাহিক কোন বন্ধ নেই। প্রত্যেক দিনই সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত জাদুঘরের কার্যক্রম চালু থাকে। শুরু থেকেই কোন প্রবেশ মূল্য ধার্য্য করা হয়নি।

কিভাবে যাবেন[সম্পাদনা]

ঢাকা থেকে নরসিংদী স্থলপথ কিংবা রেলপথে যাওয়া যায়। নরসিংদী জাদুঘরে যাবার জন্য ঢাকা থেকে নরসিংদী/ভৈরব/কিশোরগঞ্জ/সিলেটগামী যে-কোন বাসে প্রথমেই যেতে হবে নরসিংদী বাসস্ট্যান্ডে কিংবা ভেলানগর জেলখানার মোড়ে। এগারসিন্দুর ট্রেনে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে নামতে হবে। বাস ভাড়া ৫০ থেকে ৮০ টাকা; ট্রেনের ভাড়া ২৫ থেকে ১০০ টাকা। সময় নিবে মাত্র দেড় থেকে আড়াই ঘন্টা। শহর থেকে নরসিংদী জাদুঘরে যাবার জন্য মাইক্রোবাস, টেম্পোসহ অন্যান্য ছোট ধরনের যানবাহন রয়েছে।