উইকিভ্রমণ থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন


রাজাপুর উপজেলা বাংলাদেশের ঝালকাঠি জেলার অন্তর্গত একটি প্রশাসনিক এলাকা। ১৬৪.৩৩ বর্গ কিমি আয়তনের এই উপজেলাটি ২২°২৯´ উত্তর অক্ষাংশ থেকে ২২°৩৮´ উত্তর অক্ষাংশের এবং ৯০°০৩´ পূর্ব দ্রাঘিমা থেকে ৯০°১৩´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশের মধ্যে অবস্থিত, যার উত্তরে ঝালকাঠি সদরকাউখালী (পিরোজপুর) উপজেলা; দক্ষিণে ভান্ডারিয়া উপজেলা, কাঁঠালিয়া উপজেলাবেতাগী উপজেলা, পূর্বে নলছিটিবাকেরগঞ্জ উপজেলা এবং গজালিয়া নদী, পশ্চিমে ভান্ডারিয়া উপজেলাকাউখালী উপজেলা

কীভাবে যাবেন?[সম্পাদনা]

রাজধানী ঢাকা থেকে উপজেলা সদরের দূরত্ব ১৮৫ কিলোমিটার ও জেলা সদর হতে ১৫ কিলোমিটার। এই জেলাটি একটি উপকূলী ও নদীবহুল অঞ্চল হওয়ায় এখানকার যেকোনো স্থানে আসার জন্য নৌপথ সবচেয়ে সুবিধাজনক পরিবহন ব্যবস্থা। তবে, সড়ক পথেও এখানে আসা সম্ভব; সেক্ষেত্রে ফেরী পারাপার হতে হবে। ঝালকাঠিতে রেল যোগাযোগ বা বিমান বন্দর নেই বলে এই দুটি মাধ্যমে এখানকার কোনো স্থানে আসা যায় না।

স্থল পথে[সম্পাদনা]

  • ভান্ডারিয়া উপজেলা থেকে বাসে আথবা টেম্পু যোগে রাজাপুর উপজেলায় আসা যায়।
  • পিরোজপুর সদর উপজেলা থেকে বাসে আথবা টেম্পু যোগে রাজাপুর উপজেলায় আসা যায়।
  • ঝালকাঠী সদর উপজেলা থেকে বাসে আথবা টেম্পু যোগে রাজাপুর উপজেলায় আসা যায়।

দর্শনীয় স্থানসমূহ[সম্পাদনা]

  1. সাতুরিয়া জমিদার বাড়ি,
  2. মুগল আমলের সুরিচোড়া জামে মসজিদ,
  3. সুজাবাদ কিল্লা,
  4. রাজাপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় (১৯২৬)।

খাওয়া - দাওয়া[সম্পাদনা]

থাকা ও রাত্রি যাপনের স্থান[সম্পাদনা]

রাজাপুরে থাকার জন্য স্থানীয় পর্যায়ের কিছু সাধারণ মানের হোটেল রয়েছে। এছাড়াও সরকারি ব্যবস্থাপনায় থাকার জন্যে রয়েছে উন্নতমানের -

  • জেলা পরিষদ ডাকবাংলো - রাজাপুর।

জরুরি নম্বরসমূহ[সম্পাদনা]

পরিবহন সম্পর্কিত যোগাযোগের জন্য
  • বি.আর.টি.সি. পরিবহন: মোবাইল: +৮৮০১৭১২-১৬৯ ৯২৭; +৮৮০১৫৫৮-৩৬১ ৪৮৬।
  • প্যাডল স্টীমার পরিবহন: মোবাইল: +৮৮০১৫৫৮-৩৬১ ৪৪০।
জননিরাপত্তা সম্পর্কিত যোগাযোগের জন্য
  • ওসি, রাজাপুর: মোবাইল: +৮৮০১৭১৩-৩৭৪ ২৮৮।